আপনার রেজুমে কত পৃষ্ঠার হওয়া উচিত?

স্বাভাবিক ধারণা অনুযায়ী, রেজুমে যত সংক্ষিপ্ত ও তথ্যবহুল হবে, ততই ভালো বলে মনে করা হয় আর তার কারণে অনেকেই এক পৃষ্ঠার রেজুমে তৈরি করেন। কিন্তু গবেষণা থেকে দেখা গেছে অন্যরকম তথ্য।

রেজুমেগো নামের একটি রেজুমে সংক্রান্ত ওয়েবসাইটের গবেষণা অনুযায়ী, আসলে দুই পৃষ্ঠার রেজুমে পছন্দ করেন বেশীরভাগ চাকুরিদাতা। এমনকি এক পৃষ্ঠার রেজুমের তুলনায় দুই পৃষ্ঠার রেজুমের কদর ২.৩ গুণ বেশি। শুধু তাই নয়, যে পদে আবেদন করছেন তা যদি বেশ সিনিয়র পদ হয়, তাহলে নিঃসন্দেহে এর জন্য দুই পাতার রেজুমে জরুরী।

দেখা যায়, চাকুরিদাতারা এন্ট্রি লেভেল পদে দুই পৃষ্ঠার রেজুমে ১.৪ গুণ বেশি পছন্দ করেন, মিড লেভেল পদে ২.৬ গুণ এবং ম্যানেজার লেভেল পদে ২.৯ গুণ।

রেজুমেগো কোম্পানিটির সহ-প্রতিষ্ঠাতা পিটার ইয়াং জানান, অনেক ক্যারিয়ার এক্সপার্ট মনে করেন অনেক বছর ধরে একাধিক কোম্পানিতে ফুল টাইম কাজ করার অভিজ্ঞতা না থাকলে দুই পৃষ্ঠার রেজুমে তৈরি করা যাবে না। কিন্তু তাদের গবেষণায় তা ভুল প্রমাণিত হয়েছে। কারণ দুই পৃষ্ঠার রেজুমেতে অনেক জরুরী তথ্য দেওয়া যায়।

গবেষণায় অংশগ্রহণকারী চাকুরিদাতাদের কিছু রেজুমে দিয়ে সেগুলোকে ০ থেকে ১০ এর মাঝে নাম্বার দিতে বলা হয়। এতে দুই পৃষ্ঠার রেজুমে ২১ শতাংশ ভালো ফল করে। এতে মনে করা হয়, দুই পৃষ্ঠার রেজুমেতে অতিরিক্ত যে তথ্য থাকে তাতে ওই চাকুরিপ্রার্থীর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়াটা সহজ হয়। এন্ট্রি লেভেল চাকরির ক্ষেত্রেও তা প্রযোজ্য।

আরও দেখা যায়, যাদের রেজুমে দুই পৃষ্ঠা লম্বা, তাদের রেজুমে পড়তে বেশি সময় দেন চাকুরিদাতারা। এক পৃষ্ঠার রেজুমে পড়তে গড়ে ২ মিনিট ২৪ সেকেন্ড সময় দেওয়া হয়। অন্যদিকে দুই পেজের রেজুমে পড়তে গড়ে ৪ মিনিট ৫ সেকেন্ড সময় দেওয়া হয়। ফলে অনেকে যে ধারণা করেন দুই পেজের রেজুমে পড়তে সময় ব্যয় করা হয় না, সে ধারণাটি ভুল।

সুত্র: হাফিংটন পোস্ট