জানেন কি……হ্যান্ডওয়াশ ব্যবহারে কি মারাত্মক অসুখ হতে পারে ……

হাত থেকে জীবাণু যেন পেটে না যায় এজন্য ছোট থেকে বড় সবাই হ্যান্ডওয়াশের ওপর নির্ভরশীল। তবে হ্যান্ডওয়াশ যদি হয় ক্ষতির কারণ। তাহলে দুশ্চিতা তো আরো বেড়ে যায়। তবে অবাক লাগলেও এটাই সত্যি একদল গবেষক জানাচ্ছেন হ্যান্ডওয়াশ থেকে হতে পারে মারাত্মক অসুখ। হ্যান্ডওয়াশ ব্যবহার করতে চিকিৎসকরাও রীতিমতো অভ্যাসে পরিণত করতে পরামর্শ দিয়ে থাকেন আমাদের।

সাবানের পরিবর্তে আমরা অনেকেই লিকুইড হ্যান্ডওয়াশে আস্থা রাখি। কিন্তু এই হ্যান্ডওয়াশের মাধ্যমে হাত পরিষ্কার করতে গিয়েই হিতেবিপরীত হচ্ছে না তো? হ্যান্ডওয়াশ থেকে বড়সড় কোনো অসুখ বাসা বাধার আশঙ্কাকে কিন্তু উড়িয়ে দিচ্ছেন না মার্কিন বিজ্ঞানীরা।

মার্কিন বিজ্ঞানীদের মতে, বেশির ভাগ বাজার চলতি লিকুইড হ্যান্ডওয়াশে ট্রাইক্লোসান ও ট্রাইক্লোকার্বন নামে দু’টি রাসায়নিক উপাদান রয়েছে। যার প্রভাবে শরীরের মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। জীবাণু ধ্বংস করতে এই দুই উপাদান খুব কার্যকর বলে দাবি করে হ্যান্ডওয়াশ প্রস্তুতকারী সংস্থারা, তেমনই ত্বকের জন্য এরা ক্ষতিকারক।

বিজ্ঞানীদের দাবি, যেসব হ্যান্ডওয়াশে এই দুই উপাদান মাত্রাতিরিক্ত রয়েছে, তাদের প্রভাবে ত্বকের পাশাপাশি পেটের সমস্যা হতে পারে। সেই সঙ্গে মস্তিষ্কের কোষেরও নানা ক্ষতি হতে পারে।

মার্কিন ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের দাবি, শুধু লিকুইড হ্যান্ড ওয়াশেই নয়, একাধিক মাউথ ওয়াশ, টুথপেস্ট ও ডিটারজেন্টেও এই সব ক্ষতিকর রাসায়নিকের উপস্থিতি থাকে।

মার্কিন বিশেষজ্ঞদের দাবি, ট্রাইক্লোসান ও ট্রাইক্লোকার্বন মিশ্রিত হ্যান্ডওয়াশ অতিরিক্ত ব্যবহারের ফলে জন্মাতে পারে ‘ড্রাগ রেজিস্ট্যান্ট জার্ম’ যাদের কোনও ওষুধের দ্বারাই নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব নয়।

ত্বক বিশেষজ্ঞ কৌশিক লাহিড়ীও এই দুই উপাদানকে এড়িয়ে চলারই পক্ষপাতী। তার মতে, এই দুই উপাদান ত্বককে খসখসে করে তোলা, ত্বকে নানা প্রদাহের জন্ম দেওয়া ছাড়াও পেটের অসুখের কারণ হতে পারে। অতিরিক্ত ব্যবহারে হাইপোথ্যালামাস ও থ্যালামাসেও সমস্যা তৈরি করতে পারে এই দুই উপাদান।