ওজন কমান মিষ্টি খেয়ে, কিভাবে? জেনেনিন

বাড়তি ওজন কারোই কাম্য নয়। বাড়তি ওজন কেবল সৌন্দর্যই নষ্ট করে না, দেহে নানা রকম কঠিন রোগেরও সৃষ্টি করে। তাইতো ওজন কমাতে অনেকেই কঠোর ডায়েট অনুসরণ করেন, তো আবার কেউ কেউ শরীরচর্চায় ব্যস্ত থাকেন। অভিনেতা-অভিনেত্রী থেকে শুরু সাধারণ মানুষ সবার মধ্যেই ওজন কমানোর চেষ্টার কমতি নেই।
ওজন কমাতে গেলে প্রথমেই মিষ্টি খাবার পরিহার করতে হয়। একথা সবারই জানা। তবে জানেন কি, মিষ্টি খেয়েও কমানো যায় ওজন তাও আবার পরিশ্রম না করেই। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক ঘরোয়া উপায়ে ওজন কমাতে করণীয়-

>> ঘরোয়া উপায়ে ওজন কমাতে আপনাকে সাহায্য করতে পারে কিশমিশ ও গুড়। এজন্য একটি পাত্রে গরম জলে কয়েকটি কিশমিশ ভিজিয়ে রাখুন। পরের দিন সকালে উঠে খালি পেটে তা পান করুন। বেশ কিছুদিন এই নিয়ম মেনে চললে কমতে পারে ওজন।

>> এছাড়া টক দইয়ের সঙ্গে কিশমিশ মিশিয়ে খেলেও সুফল পেতে পারেন।

>> স্বাদে মিষ্টি হলেও ওজন কমাতে গুড় অনেক উপকারী। এজন্য এক কাপ জলে ৫ গ্রাম গুড় ভিজিয়ে রাখুন। আবার সকালে উঠে প্রথমে খালি পেটে এক টুকরো গুড় খেতে পারেন। এর কিছুক্ষণ পর গুড় ভেজানো জল পান করুন।

>> পুষ্টিবিদদের মতে, গুড় ও কিশমিশ ওজন কমানোর সুপার ফুড হিসেবে বিবেচিত। ওজন কমানোর পাশাপাশি এই দুটি উপাদান রক্তচাপও নিয়ন্ত্রণে রাখে। এমনকি শ্বাসযন্ত্রজনিত বিভিন্ন সমস্যার সমাধান করে ও হাড়ের ঘনত্ব বজায় রাখে।

>> এছাড়া পেশি শক্তিশালী ও মজবুত করে তোলে। গুড় ও কিশমিশ বিপাক ও হজম ক্রিয়ারও উন্নতি ঘটায়। বিপাক হারও ঠিক রাখে। ফলে ওজনও থাকে নিয়ন্ত্রণে। এমনকি নিয়মিত গুড় খেলে অন্যান্য মিষ্টি খাবার খাওয়ার প্রবণতাও কমে।Ts

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© 2022 Tips24 - WordPress Theme by WPEnjoy