দৈনিক ওটস খেলে হৃদরোগ ও স্ট্রোকের আশঙ্কা কমে, জানাচ্ছে চিকিৎসক

আমাদের দেশে হৃদরোগ ও স্ট্রো কে আক্রান্ত হবার হার অনেক বেশি। আর যার পরিণতি হয় ভয়াবহ। সমগ্র পৃথীবিতে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক মানুষ মারা যান হৃদরোগ ও স্ট্রো কে আক্রান্ত হয়ে।

হৃদরোগ এবং স্ট্রোকের প্রধান কারণ রক্তনালীর অন্তঃ প্রাচীরে কোলেস্টেরল ও অন্যান্য স্নেহ পদার্থের সঞ্চয়। বিজ্ঞানের ভাষায় একে বলে, অ্যাথেরোস্ক্লেরোসিস। হৃদযন্ত্রের সংলগ্ন শিরা বা ধমনীতে এই ধরনের অবরোধ দেখা দিলে তা যেমন হৃদরোগের কারণ হতে পারে তেমনই মস্তিষ্কের রক্তনালীতে এই ঘটনা ঘটলে বাড়ে স্ট্রোকের সম্ভবনা।

তবে বিশেষজ্ঞদের মতে স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভাস এই রোগের আশঙ্কা অনেকটাই কমাতে পারে। আর এই রোগগুলোর সম্ভবনা কমাতে ওটস অত্যন্ত উপকারি খাদ্য।

ওটসের উপকারিতা
অ্যাথেরোস্ক্লেরোসিস রোগে ঝুঁকির সম্ভাবনা অনেকাংশে বৃদ্ধি করে এলডিএল বা খারাপ কোলেস্টেরল। ওটস খেলে দেহে খারাপ কোলেস্টেরলের পরিমাণ হ্রাস পায় অনেকটাই।

ওটসে থাকে অ্যাভেনানথ্রামাইড নামক অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট। প্রদাহ সৃষ্টিকারী একাধিক প্রোটিন কমাতে এটি সহায়তা করে। এ ছাড়া এমন কিছু উপাদান যা শিরা ও ধমনীর দেওয়ালে আটকে থাকে তা কমাতেও সহায়তা করে এটি।

বিশেষজ্ঞদের মতে, ওটসের খোসাতে থাকে প্রচুর পরিমাণ ফাইবার যা শিরা ও ধমনীকে ভাল রাখতে সহায়তা করে।bs

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© 2022 Tips24 - WordPress Theme by WPEnjoy