’মাদার্স ডে’-কীভাবে মায়েদের জন্য প্রচলিত হল একটি বিশেষ দিন, জানুন সেই ইতিহাস

মায়েদের জন্য সেই অর্থে আলাদা করে কোনও দিন হয় না, তবে সারা বিশ্বে মায়েদের জন্য বরাদ্দ রয়েছে একটি বিশেষ দিন। ভারত-সহ অনেক দেশেই মে মাসের দ্বিতীয় রবিবারেই পালিত হয় মাদার্স ডে।

তবে এই দিনটির প্রথম প্রচলন ঘটে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। মার্কিন সমাজকর্মী অ্যানা জার্বিস তাঁর মাকে ভীষণ ভালবাসতেন। আজীবন অবিবাহিত আনা, তাঁর মায়ের মৃত্যুর পর মাদার্স ডে-র প্রচলন করেন। সালটা ১৯০৮। মায়েদের জন্য একটি বিশেষ দিনকে চিহ্নিত করার জন্য ১৯০৫ সাল থেকে অভিযান শুরু করেন অ্যানা। ১৯১০ সালে অ্যানা যেখানে থাকতেন সেই পশ্চিম ভার্জিনিয়া স্টেটে প্রথম সরকারিভাবে এই দিনটি উদযাপন করা হয়। এরপর ১৯১১- সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সব স্টেটেই উদযাপন করা হয় মাদার্স ডে হিসাবে।

শেষ পর্যন্ত ১৯১৪ সালের ৯ মে প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট উড্রো উইলসন নয়া আইন প্রনয়ণ করেন যে, প্রত্যেক বছর মে মাসের দ্বিতীয় রবিবার পালিত হবে মাদার্স ডে। সেইসঙ্গে উড্রো উইলসন মাদার্স ডে-কে একটি সরকারি ছুটির দিন হিসেবে ঘোষণা করেন।

মায়েদের জন্য একটি বিশেষ দিন সরকারিভাবে ঘোষিত হোক এই ছিল অ্যানা জার্বিসের মায়ের স্বপ্ন। মায়ের সেই স্বপ্নটিকেই বাস্তবায়িত করার উদ্যোগ নিয়েছিলেন অ্যানা এবং শেষ পর্যন্ত তিনি সফলও হয়েছিলেন। ধীরে ধীরে এই দিনটিকে অনেক দেশেই মাদার্স হিসাবে পালন করা হয়। তবে ভারতে নব্বইয়ের দশক থেকে মাদার্স ডে-র প্রচলন শুরু হয়।bs

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© 2022 Tips24 - WordPress Theme by WPEnjoy