মানুষ যে ১০টি কারণের জন্য নিয়মিত মিথ্যা কথা বলেই থাকে, জেনেনিন

মানুষ অনেক সময় মিথ্য কথা বলে। অনেকে বিপদে পড়ে বলে, অনেকে আবার অপ্রয়োজনেও বলে। আরো বেশ কয়েকটি কারণে মানুষ মিথ্যার আশ্রয় নেয়। চলুন জেনে নেওয়া যাক।

ধরে পড়া যাওয়া এড়াতে
মিথ্যা কথা বলে কে ধরা খেতে চায়? ধরা খাওয়ার ভয়ে অনেকে চুপ করে বা মিথ্যার আশ্রয় নেয়।

নাটক
স্বামী স্ত্রীর মধ্যে দ্বন্দ্ব এড়াতে অনেকে মিথ্যা বলে। কারণ সত্য বললে সঙ্গী রাগ করতে পারে। এ জন্য শান্তি বজায় রাখতে অনেকে মিথ্য বলে।

তিক্ত অতীত
অনেক মানুষের জীবনে অতীত থাকে। দেখা যায় অতীতে সে মানুষটি সৎ ছিল কিন্তু তার সাথের মানুষটির কারণে সম্পর্ক টেকেনি বেশিদিন। সে ক্ষেত্র আগের সম্পর্কের বিষয় গোপনের জন্য অনেকে মিথ্যা বলে।

কাজ এড়াতে
ঘর বা অফিসের কাজ থেকে নিজেকে বাঁচাতে অনেক মানুষ আছে যারা মিথ্যা বলে। অন্য কিছুর অজুহাত দিয়ে তারা কাজ এড়াতে চায়।

দুঃখ না দেওয়ার উদ্দেশ্যে
অনেকেই আছেন যারা অল্পকিছুতে রাগ করেন বা মন খারাপ করেন। এ জন্য অন্যকে কষ্ট না দেওয়ার উদ্দেশ্যে অনেকে মিথ্যার আশ্রয় নেন।

অনিশ্চয়তা
মানুষ যখন নিজেকে নিয়ে অনিশ্চয়তায় ভোগে তখন সে নিজেকে ভালোভাবে উপস্থাপন করতে চায়। সে সময় সে মিথ্যা কথা বলে।

অপরিণত
একটা সময়ে মানুষ ইমম্যাচিওর থাকে। সে সময় সে নিজের অজান্তেই মিথ্যা বলে ফেলে। পরে সময়ের সাথে সাথে সে সবকিছু বুঝতে শেখে।

নিয়ন্ত্রণ
অনেক মানুষ নিয়ন্ত্রণ করতে চায় আর যখন পারে না তখন মিথ্যার আশ্রয় নেয়।

আবেগ, অনুভূতি
আবেগ মানুষকে অনেক কিছু করাতে বাধ্য করে। আবেগের বশবর্তী হয়ে মানুষ অনেক কিছু ভুলে যায় আর সে সময় মিথ্যার আশ্রয় নেয়।bs

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© 2022 Tips24 - WordPress Theme by WPEnjoy