শুধু উপভোগই নয়, মনের মানুষের সঙ্গে সঙ্গমের উপকারিতারও শেষ নেই

বলা হয়, যাঁরা অনিদ্রা রোগে ভুগছেন, তাঁরা যদি প্রিয়জনের পাশে ঘুমোন, তাহলে ঘুম ভাল হতে সাহায্য করে৷

মনের মানুষের সঙ্গে শয্যা ভাগ করে নেওয়ার একাধিক শারীরিক উপকারিতাও আছে৷ বলা হয়, যাঁরা অনিদ্রা রোগে ভুগছেন, তাঁরা যদি প্রিয়জনের পাশে ঘুমোন, তাহলে ঘুম ভাল হতে সাহায্য করে৷

অনিদ্রা-

প্রিয়জনের সঙ্গে শয্যাভাগ করে নিলে ঘুম তাড়াতাড়ি আসে এবং গাঢ় ঘুম হতে সাহায্য করে৷ ফলে শরীরের অন্যান্য সমস্যাও দূর হয়৷

সার্বিক সুস্বাস্থ্য-

শুধুমাত্র সুনিদ্রায় শেষ হয়ে যায় না প্রিয়জনের সঙ্গে ঘুমনোর সুফল৷ শারীরিক সুস্থতার ক্ষেত্রেও এটি অত্যন্ত ফলপ্রসূ৷

উচ্চরক্তচাপ –

অক্সিটোসিন হরমোনের ক্ষরণ বেশি হওয়ায় উচ্চরক্তচাপে সমস্যা কমে৷ তাছাড়া যৌন সম্পর্কের কারণে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও জোরদার হয়৷

মানসিক স্বাস্থ্য-

প্রিয়তমর বাহুলগ্না হয়ে ঘুমোলে সুরক্ষা ও নিশ্চিত যত্নের বোধ সঞ্চারিত হয় অবচেতনে৷ মানসিক স্বাস্থ্য এবং আবেগের দিক থেকেও এই বোধ গুরুত্বপূ্র্ণ৷

মানসিক উদ্বেগ-

মনের মানুষের সঙ্গে নিশ্চিত নিদ্রায় প্রশমিত হয় মানসিক উদ্বেগও৷ প্রিয় স্পর্শের আলিঙ্গনে ‘ফিল গুড হরমোন’ সেরোটোনিনের ক্ষরণ হয়৷ ফলে মানসিক উদ্বেগ কমে যায় অনেকটাই৷

সম্পর্কের উন্নতি-

শুধু শারীরিক সুস্থতা নয়৷ একসঙ্গে সুনিদ্রায় পোক্ত হয় সম্পর্কের বাঁধনও৷ সম্পর্কে কোনও তিক্ততা বা ওঠানামা এলে সেটাও দূর হয় ভালবাসার দৃঢ় অথচ কোমল স্পর্শে৷bs

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© 2022 Tips24 - WordPress Theme by WPEnjoy