সাবধান! অতিরিক্ত কফি পান ভয়ানক বিপদের লক্ষণ, জেনেনিন বিস্তারিত

সকালে ঘুম থেকে উঠে চা-কফি পানের অভ্যাস কমবেশি আমাদের সবারই আছে। এছাড়াও অফিসে কাজের ফাঁকে কিংবা বন্ধুদের আড্ডায় চা-কফি ছাড়া যেন চলেই না। তবে কেউ কেউ আছেন যারা দিনে কয়েকবার অর্থাৎ অতিরিক্ত কফি পান করেন। যা মোটেও স্বাস্থ্যকর নয়।
বিশেষজ্ঞদের মতে, কফি শরীর তরতাজা করে তুলতে পারে ঠিকই, কিন্তু মাত্রাতিরিক্ত কফি সেবন বিপদ ডেকে আনে। কফি পানে যেমন নানা উপকারিতা পাওয়া যায়, ঠিক তেমনি অতিরিক্ত কফি সেবনে নানা শারীরিক সমস্যা দেখা দেয়। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক অতিরিক্ত কফি পান যেসব ভয়ানক বিপদ ডেকে আনে-f

মাথাব্যথা

মাঝে মাঝে পর্যাপ্ত মাত্রায় ক্যাফিন সেবনে মাথাব্যথার উপসর্গগুলো দূর হয়। তবে মাত্রাতিরিক্ত ক্যাফিন বিপরীত প্রভাব ফেলতে পারে। এর ফলে মাথা যন্ত্রণা এবং মাইগ্রেনের মতো সমস্যাও দেখা দিতে পারে।

ওজন বৃদ্ধি করে

যদি প্রতিদিন দুধ, ক্রিম এবং চিনি দিয়ে কয়েক কাপ কফি সেবন করা হয় তাহলে ক্যালোরি গ্রহণের মাত্রা বৃদ্ধি পেতে পারে। যার ফলে খুব সহজেই ওজন বৃদ্ধি হওয়ার সম্ভাবনাও বেড়ে যায়। এমনকি অতিরিক্ত কফি সেবনের ফলে অনিদ্রার সমস্যা দেখা দেয়, যা ওজন বৃদ্ধির জন্য দায়ী হতে পারে।

ক্লান্তি ভাব

চা, কফি এবং অন্যান্য ক্যাফিনযুক্ত পানীয় শক্তি বাড়িয়ে দেয়। তবে অতিরিক্ত ক্যাফিনের সেবন বিপরীত প্রভাব ফেলতে পারে। গবেষণায় দেখা গেছে , ক্যাফিনের সেবন বেশ কয়েক ঘণ্টার জন্য সতেজতা এবং শক্তির যোগান দেয়। তবে ক্যাফিনের প্রভাব কমে যাওয়ার পরবর্তী সময়ে, স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক বেশি ক্লান্তি অনুভূতি হয়।

উদ্বেগ বাড়িয়ে দেয়

পরিমিত মাত্রায় কফির সেবন, উদ্বেগ কমাতে সহায়তা করে। কিন্তু মাত্রাতিরিক্ত কফির সেবন, ঠিক উল্টো প্রভাব ফেলে, অর্থাৎ উদ্বেগ বাড়িয়ে দিতে পারে। অত্যধিক পরিমাণে কফি পান করার ফলে উদ্বেগ বাড়তে পারে। এর ফলে বিরক্তি বোধও বাড়তে পারে।

অনিদ্রা

অনিদ্রা অলসতা প্রতিরোধ করার সব থেকে কার্যকর উপায় হল কফি পান। তবে অতিরিক্ত ক্যাফিন সেবন, অনিদ্রার কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে। বিশেষ করে রাতের দিকে কফি পান করলে, ঘুমের সমস্যা হতে পারে। যার ফলে অনিদ্রার সমস্যাও দেখা দিতে পারে।

পেটের সমস্যা দেখা দেয়

অনেকেই সকালবেলা কফি খেতে পছন্দ করেন। কফি গ্যাস্ট্রিন নামক একটি হরমোন নিঃসরণে সহায়তা করে, যা কোলনের কার্যকলাপে আরো গতি বৃদ্ধি করে। তবে অতিরিক্ত কফির সেবনের ফলে পেটের বিভিন্ন সমস্যা হতে পারে।

হৃদস্পন্দন দ্রুত হয়

অতিরিক্ত কফি পান শরীরে উদ্দীপক হিসেবে কাজ করে, যা কারও হৃদস্পন্দনকে আরো দ্রুততর করতে পারে। ক্যাফিনের উচ্চ মাত্রায় গ্ৰহণ হৃদস্পন্দনের দ্রুততর করে দেওয়ার ফলে, বিরক্তি ভাব কিংবা উদ্বেগ দেখা দিতে পারে।

রক্তচাপ ওঠানামা করতে পারে

অতিরিক্ত কফি সেবনের ফলে রক্তচাপ ওঠানামার সমস্যা দেখা দিতে পারে। উচ্চ রক্তচাপ সময়ের সঙ্গে সঙ্গে ধমনী ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে, যার ফলে হৃৎপিণ্ডে রক্ত প্রবাহ বাধাপ্রাপ্ত হতে পারে। এর ফলে স্ট্রোকের ঝুঁকি বেড়ে যায়। কারো যদি উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা থেকে থাকে, তবে ক্যাফিন গ্রহণের ক্ষেত্রে অবশ্যই সর্তক থাকা উচিত। কারণ এটি উচ্চ রক্তচাপের ঝুঁকি বাড়াতে পারে।bs

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© 2022 Tips24 - WordPress Theme by WPEnjoy