সাবধান! বদলে ফেলুন টাইট অন্তর্বাস পড়ার অভ্যাস নাহলে অল্প সময়ে পড়তে চলেছেন বড়ো বিপদে

বেশিরভাগ মানুষ অন্তর্বাস সম্পর্কে একেবারেই উদাসীন। অথচ বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, টাইট অন্তর্বাস পরলে শারীরিক ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা থাকে। সেই কারণে অন্যান্য পোশাকের মতো অন্তর্বাসও ভালোভাবে দেখে কেনা উচিত।

কী বলছে গবেষণা?

আমরা অনেকেই হয়তো শুনেছি, ধূমপান, মদ্যপান কিংবা অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাপনের কারণে পুরুষের বন্ধ্যাত্বের সমস্যা হতে পারে। কিন্তু সম্প্রতি অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির এক গবেষণা প্রতিবেদনে গবেষকরা জানিয়েছেন আঁটসাঁট অন্তর্বাসের কারণে শুক্রাণু বা স্পার্ম কাউন্ট কমে যেতে পারে। হিউম্যান রিপ্রোডাকশন জার্নালে প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বক্সার জাতীয় অন্তর্বাস পরলে শুক্রাণুর সংখ্যা বা ঘনত্ব বেশি হয়।

অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হেলথের জার্নালে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, মেয়েরা যদি নিজের সাইজের থেকে ছোট প্যান্ট বা অন্তর্বাস পরেন, তাহলে তাদের ইউরিনারি ট্রাক ইনফেকশন হওয়ার আশঙ্কা বাড়ে। খুব টাইট প্যান্ট পরার কারণে গোপনাঙ্গে ইস্ট ইনফেকশন হতে পারে।

ফিটিংস মানেই এক সাইজ ছোট নয়

বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, অতিরিক্ত স্টাইলিশ হতে গিয়ে ছোট অন্তর্বাস ব্যবহার করা উচিত নয়। বেশিরভাগ মানুষই এমন কাজ করে থাকেন। এর ফলে শারীরিক ক্ষতি হয়। তাই সাধারণ পোশাকের মতোই অন্তর্বাস কিনতে গিয়ে সচেতন থাকা বাঞ্ছনীয়। তা ছাড়া ব্যায়ামের জন্য অনেকে বিশেষ অন্তর্বাস (যেমন স্পোর্টস ব্রা) পরেন। খুব টাইট অন্তর্বাস পরলে নিম্নাঙ্গে ঘাম জমে চুলকানি হতে পারে। তাই অন্তর্বাস যখন কিনবেন, তখন সুতি নরম কাপড়ের অন্তর্বাস বেছে নিলে সুফল পাবেন।

বিপদ এড়াতে কী করবেন?

১. আরাম ও সুস্থতার দিকে খেয়াল রাখুন।

২. ফ্যান্সি ফ্যাব্রিক না কিনে সুতির অন্তর্বাস কিনুন।

৩. সারাদিন একই অন্তর্বাস পরে থাকবেন না।

৪. এক থেকে দেড় মাস পর নতুন অন্তর্বাস কেনা জরুরি।

৫. ব্যায়ামের সময় সাধারণ অন্তর্বাস পরবেন না। এতে ঘাম জমে ব্যাকটেরিয়াল সংক্রমণের সম্ভাবনা বাড়ে।

৬. অন্তর্বাস পরে ঘুমাবেন না।

৭. অন্তর্বাস সবসময় পরিষ্কার রাখুন।

৮. ওয়াশিং মেশিন বা ড্রায়ারে অন্তর্বাস পরিষ্কার করবেন না।bs

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© 2022 Tips24 - WordPress Theme by WPEnjoy